Atheist in Bangladesh

মুশফিক এভাবে ধারালো অস্ত্র দেখিয়ে আমাদের কিসের ইন্দিত দিচ্ছে?

মুশফিকুর রহিম’কে ইদানীং ফেসবুকে বেশ একটিভ দেখা যায়। লকডাউন এর পর থেকে সে এখন বাসার সামনে হাঁটাহাঁটি থেকে শুরু করে ছেলেকে নিয়ে ছাগল’কে কাঁঠাল পাতা খাওয়ানোর ভিডিও পর্যন্ত ফেসবুকে আপলোড করে থাকেন। এতে দেখা যায় মানুষ বেশ লাইক কমেন্টস করেন।

আর তা থেকেই উৎসাহিত হয়ে আরো সস্তা লাইক, কমেন্টস পাওয়ার জন্যই গরু কাটার পর ধারালো এই অস্ত্রটি নিয়ে ফেসবুকে এমন ছবি আপলোড করেন।

পৃথিবীর প্রতিটি মুসলিম দেশেই কোরবানি দিয়ে থাকে। কিন্তু বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানের মতো এতো জঘন্যতম বর্বরতার প্রদর্শনী কোথায় করা হয় বলে আমার জানা নেই। এমনকি সৌদি আরবেও যদি রাস্তা ঘাট বা খোলা যায়গায় এভাবে কোরবানী করা হয় তবে তাকে জবাবদিহিতার আওতায় আনা হয়, আর আমাদের দেশে এটা নিয়ে শোডাউন করা হয়ে থাকে।

আসলে মুশফিকের কোন ধারণাই নাই যে এই ধরনের একটি ভয়ংকর মার্কা ছবি আপলোড করে তিনি কত বড় একটা অপরাধ করেছেন, তাছাড়া এই মুহূর্তে তিনি বাংলাদেশ না হয়ে অন্য কোন দেশে থাকলে এতক্ষনে টেরও পেয়ে যেতেন।

এটা খুবই হতাশাজনক এবং নিজের গায়ে রক্ত মেখে হাতে ধারালো লম্বা ছুরি নিয়ে প্রদর্শন করা একটি উস্কানিমূলক পোস্টও বটে!

আমি মনে করি এজন্য তার এখন সবার কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিৎ।

 

মাহাদী হাসান।

Print Friendly, PDF & Email

Md Mahadi Hasan