Atheist in Bangladesh

প্রসঙ্গঃ আসাদ নূর

নির্বাচন সামনে রেখে সরকার আরো কঠোর হবে স্যাকুলারদের উপর। স্বনামে বেনামে যেই হোক পানিতে নেমে কুমিরের সাথে লড়ার সাহস না দেখালেই ভাল। পুলিশ যে শুধু গ্রেপ্তারই করে তা না, আপনার নাম ঠিকানা জঙ্গিদের দিয়ে কুপানোর রাস্তা দেখিয়ে দেবেনা তার নিশ্চয়তা নাই। এই পুলিশ বাহিনী একের পর এক ব্লগারদের ধরছে, মারছে, গুম করছে এবং সুযোগ পেলেই হত্যা করছে। কি করার রয়েছে আমাদের? কি করতে পারি আমরা? উত্তর হচ্ছে, জানিনা। আসলেই জানিনা। আসাদ নুরকে মোল্লারা সবাই চিনে, তাই সরকার তাকে গ্রেপ্তার করলে সরকারের ক্রেডিট বাড়ে। সরকার জঙ্গিদের দ্বারা হত্যা করিয়ে জঙ্গিদের সেই ক্রেডিট নিতে দিবেনা।

এই সরকারকে বলা হয় সেক্যুলার সরকার কিন্তু কাজে কামে এই সরকারের থেকে সবচাইতে বড় মৌলবাদী সরকার আর হতেই পারে না। এই সরকারের অধীনেই হত্যা করা হয়েছে ব্লগারদের, একের পর এক খুন করা হয়েছে মুক্তমনাদের। আসাদ নূরের এই গ্রেফতারের পুরো বিষয়টাতে সরকারের যে হাত রয়েছে তা বলা বাহুল্য আত্র। কেননা একজন লোক দেশের বাইরে থেকে এসেই কি করে ইমিগ্রেশন পুলিশের নজরে পড়ে? কিভাবে তাকে গ্রেফতার করা হয়? তার নামে যদি কোর্টে মামলা থেকেও থাকে সেটি কিভাবে এত তাড়াতাড়ি ইমিগ্রেশনে চলে আসে কিংবা সাদ নূরকে কিভাবে ওরা চিনে ফেলেছে? এসব সব কিছুর-ই উত্তর থাকা দরকার, এসব সব কিছুরই সুরাহা হওয়া দরকার

Print Friendly, PDF & Email

Roosevelt Halder

আমি রুজভেল্ট হালদার। যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনে থাকি। জন্মসূত্রে ও জাতীয়তায় আমি বাংলাদেশী। কিন্তু ধর্ম সূত্রে বাংলাদেশের মুসলমানরা আমাকে কিংবা আমাদের মত সংখ্যা লঘুদের অ-বাংলাদেশী বানিয়ে রেখেছে স্বাধীনতার এতটা বছর পরেও। যুগের পর যুগ যায় আর বাংলাদেশী সংখ্যালঘুরা সম্মান পায় না এই দেশে। আমি সেই সংখ্যালঘুদের একজন। আমার কথায় আগুন রয়েছে হয়ত, কিংবা ঝাঁঝ, কিন্তু আমার কষ্টটাও আপনারা মেপে দেখবেন। দেখবেন সেখানে কতটা যখম।