Atheist in Bangladesh

একটি সুসংবাদ

একটি ভাল খবর দিয়ে শুরু করি।

গ্রেট বৃটেনে বাংলাদেশী এবং মুসলিম পরিবারের সন্তান জাহেদ চৌধুরী তার নিজের সমকামিতাকে স্বীকৃতি দিয়েছেন এবং রোগান সীনের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। বৃটেনে এই প্রথম কোন মুসলিম সমকামী বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হলেন।

জাহেদ চৌধুরীকে সারাজীবন ধরে পারিবারিক ও সামাজিকভাবে তর্জনা, লাঞ্চনা ও যন্ত্রণা সহ্য করতে হয়েছে। মুসলিম বাবা-মায়ের তিন ভাইবোনের পরিবারের জাহেদকে এক সময় কুলাঙ্গার সন্তান হিসেবেই দেখা হতো। জাহেদ এইসব মানসিক আঘাত সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করতে গিয়েছিলেন। তার পরিবার এখনও মনে করে সমকামিতা একটি রোগ আর সে অসুস্থ। জাহেদ অসংখ্যবার মুসলিম কমিউনিটির যুবকদের দ্বারা আক্রান্ত হয়েছেন, এমনকি তার মসজিদ তাকে অমুসলিম হিসেবে আখ্যা দিয়ে, তার মসজিদে প্রবেশ নিষেধের ঘোষণা দেয়। একসময় তাকে তার পরিবার জোর করে মেয়ে বান্ধবীদের সঙ্গে চলতে বাধ্য করে, তার আচরণ বদলাতে ঔষধ প্রয়োগ করে এমনকি তাদের মক্কায় হজেও পাঠানো হয়।

এটি ২০১৭ সাল, আমাদের দুঃখ হলো এখনো আমাদের বাংলাদেশের মানুষেরা মনে করে থাকেন সমকামিতা একটি রোগ, ডাক্তারি চিকিৎসায় বা ইলেক্ট্রিক শক দিয়ে চিকিৎসা করে সমকামীতা নামক  “রোগ” থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

তবে এ খবর শুনে আমি খুবই খুশি হয়েছি যে অন্তত জাহেদ চৌধুরী তাঁর ভালোবাসার মানুষ সেয়ান রোগানের ভালবাসায় আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছেন এবং শুরু করেছেন একটি নতুন জীবন। তাদের জন্য রইলো অনেক শুভকামনা

Print Friendly, PDF & Email

Farzana Islam